Add more content here...
Dhaka ০২:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
আদিতমারীতে ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন এর শালমারায় বায়ার কোম্পানির ভুট্টা বীজ ৯২১৭এর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট জেলায় হজ্ব প্রশিক্ষণ ২০২৪ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ নিটিং ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তিতাসে এক ফার্মেসি ব্যবসায়ীকে কুপিয়েহত্যা চেষ্টা  টেকনাফে নতুন বিসমিল্লাহ ডেন্টাল কেয়ার আমাকেও এই পেসি সরকার ফাদে ফালানোর চেষ্টা করেছিলো টেকনাফ পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও ০২ নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কাউন্সিলর জনাব মাওলানা হাফেজ এনামুল হাসান পুরান পল্লান পাড়া ০২নং ওয়ার্ডকে ডিজিটাল ওয়ার্ড হিসেবে রুপ দিচ্ছে জয়পুরহাটে জামালগঞ্জে ঔষধ প্রশাসনের সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত মানবসেবায় বন্ধুরা সেচ্ছাসেবী সংগঠন থেকে মাদ্রাসায় ফ্যান বিতরণ আশা শিক্ষা কর্মসূচি ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
নোটিশঃ
প্রিয়" পাঠকগণ", "শুভাকাঙ্ক্ষী" ও প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে জানানো যাচ্ছে:- কিছুদিন যাবত কিছু প্রতারক চক্র দৈনিক ক্রাইম তালাশ এর নাম ব্যবহার করে প্রতিনিধি নিয়োগ ও বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। তার সাথে একটি সক্রিয় চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রুপ বিভিন্ন ভাবে "দৈনিক ক্রাইম তালাশ"কে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মনে রাখবেন "দৈনিক ক্রাইম তালাশ" এর অফিসিয়াল পেজ বা নিম্নের দুটি নাম্বার ব্যাতিত কোন রকম লেনদেনে জড়াবেন না। মোবাইল: 01867329107 হটলাইন: 01935355252

পাইকগাছার বোয়ালিয়া শ্মশানের পাকা রাস্তার উপরে মাটি ফেলে কাঁচা রাস্তা তৈরী করেছে ইট ভাটা; এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ

খুলনা প্রতিনিধি:পাইকগাছায় বোয়লিয়া শ্মশানে যাওয়ার পাকা রাস্তাটি রাতের আধারে মাটি দিয়ে উচু করে কাঁচা রাস্তায় পরিণত করার অভিযোগ উঠেছে ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, সড়কের পাশেই পুরাইকাটিতে অবস্থিত ফাইভ স্টার ব্রিকস্ ইটভাটার ট্রলিসহ যানবাহন চলাচলের স্বার্থে শ্মশানে যাওয়ার পাকা রাস্তাটিতে মাটি দিয়ে কাঁচা রাস্তা তৈরি করায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পাকা রাস্তার উপর মাটির কাঁচা রাস্তা তৈরি করায় এবড়ো খেবড়ো মাটি ও বৃষ্টিতে কাদা মাটিতে চলাচল করতে ব্যাপক অসুবিধায় পড়েছে শ্মশানে যাওয়া শবযাত্রী ও নদের পাড়ের জেলে পরিবারগেুলো। ফলে সড়কটির এমন বেহাল অবস্থা হয়েছে যে যান চলাচল তো দুরের কথা, পায়ে হেটে চলারও সম্পুর্ণ অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এতে ক্ষোভে ফুসে উঠছে ভুক্তভোগিরা। ভুক্তভোগীদের বক্তব্য ভাটা মালিকরা রাতের আধারে পাকা রাস্তায় মাটি দিয়ে করেছে।এবিষয়ে তাহারা জরুরী ভিত্তিতে ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ রাস্তাটি পাকা করার দাবি জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের কাছে।

সরজমিনে যেয়ে দেখা যায়, পাইকগাছার বোয়ালিয়া মহাশ্মশানটি কপোতাক্ষ নদের তীরে অবস্থিত। কপোতাক্ষ নদের উপর ব্রীজ ও সংযোগ সড়ক তৈরি হওয়ার পরে শ্মশানে যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়। শ্মশানে যাওয়ার কোন পথ না থাকায় বাধ্য হয়ে শবযাত্রীরা বোয়ালিয়া বীজ উৎপাদন খামারের ভিতর দিয়ে যাওযা আসা করতে থাকে। এমতাবস্থায় স্থানীয় সনাতন ধর্মালম্বীরা ফার্মের শরণাপন্ন হলে ফার্ম কর্তৃপক্ষ মানবিক কারণে ব্রীজের পাশ দিয়ে শ্মশানে যাওয়া জন্য রাস্তা তৈরি করে দেয়। পরে সরকারি অর্থে রাস্তাটি আর সিসি ঢালাই করা হয়। রাস্তাটি ফার্ম কর্তৃপক্ষ ও শ্মশান কমিটির নিয়ন্ত্রণে দেখভাল করা হয়। বোয়ালিয়া মহাশ্মশান কমিটির উপদেষ্টা ও উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সমিরণ কুমার সাধু বলেন, পাশের ইটভাটা মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান তার ভাটার ইটসহ বিভিন্ন সামগ্রী বহন করার জন্য ঢালাই রাস্তাটি নিচু হওয়ায় মাটি দিয়ে উচু করে পাকা ঢালাই করে দিবে বলেছিলো। কিন্তু সাত আট মাস পার হয়ে গেছে। কেন রাস্তাটি পাকা ঢালাই করছে না এ বিষয়ে তার সাথে কথা বলবো। রাস্তা পাকা করে না দিলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

ফার্মের দক্ষিণ পাশে পুরাইকাটি মৌজায় এফএফ ব্রিকস ও ফাইভ স্টার ব্রিকস্ অবস্থিত। গত বছর এমএসবি ব্রিকস্ এর মালিক মোঃ শাহিনুর রহমান দেনার দায়ে নিরুদ্দেশ হলে বিভিন্ন ঘটনার পর ফাইভ স্টার ব্রিকস্ নামে এ্যাড. মুজিবুর রহমান ও তার অংশীদাররা ইট ভাটাটি পরিচালনা করছেন। প্রায় ২০-২৫ বছর ২টি ইটভাটার যানবাহন পুরাইকাটীর ভিতর দিয়ে আসা যাওয়া করছে। তবে গত বছর থেকে ফাইভ স্টার ব্রিকস্ এর ট্রলিসহ বিভিন্ন যানবাহন কপোতাক্ষ নদের বেড়ী বাঁধ ও শ্মশানে যাওয়ার রাস্তাটি বিনা অনুমতিতে মাঝে মধ্যে ব্যবহার করছেন। এ বিষয়ে ফাইভ স্টার ব্রিকস্ এর মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান বলেন, পুরাইকাটি গ্রামের ভিতরের রাস্তার চাপ কমানোর জন্য আমরা ২টি ভাটা মিলে শ্মশানের সড়কটিতে প্রায় ২ লাখ ২০ হাজার টাকা মাটি ফেলে উঁচু করেছি। তবে বেড়ি বাঁধ ও শ্মশানের যাওয়ার রাস্তার উপর দিয়ে যানবাহন চলাচলে ফার্মের ম্যানেজার বাঁধা সৃষ্টি করছেন। আমাদের যানযাবহন যাতে চলতে না পারে তার জন্য তিনি গাছ পুতে দিয়েছেন। তবে তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বোয়ালিয়া বীজ উৎপাদন খামারের কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোন অনুমতি না নিয়ে পাকা রাস্তার উপরে মাটি ফেলেছেন। তিনি আরও বলেন, রাস্তার ক্ষতি হলে আমরা মাটি দিয়ে ঠিক করে দেবো। আমাদের ট্রলি চলতে না দিলে শ্মশানে যাওয়া রাস্তা উপর যে মাটি ফেলেছি প্রয়োজন হলে তা আমরা কেটে তুলে নিয়ে আসবো। এ ঘটনায় বীজ উৎপাদন খামারের সিনিয়র সহকারী পরিচালক নাহিদুল ইসলাম জানান, ইট ভাটার মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান কোন অনুমতি ছাড়াই রাতের আঁধারে ফার্মের দেওয়া পাকা রাস্তার উপর মাটি দিয়ে ভরাট করেছেন।

এদিকে গত ১৩ অক্টোবর শুক্রবার রাতের বেলা তিনটি ইট ভর্তি ট্রলি বেড়ি বাঁধের উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় একটি ট্রলি উল্টে ফার্মের ভিতরে পড়ে। এ সময় স্থানীয়রা ট্রলি চলাচলে বাঁধা দিলে ট্রলি চালকরা তাদেরকে হুমকি ধামকি দিলে উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও গদাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ জিয়াদুল ইসলাম জিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি অবগত করেন। এর মধ্যে ফার্মের পরিচালক ঘটনাস্থলে আসেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আল-আমিন ঐ রাতে ঘটনাস্থলে পৌছিয়ে ট্রলি তিনটি আটক করে ফার্মের ভিতরে রাখেন। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য ভাটা মালিক, ফার্ম কর্তৃপক্ষ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও কে নিয়ে ১৫ অক্টোবর তার কার্যালয়ে আলোচনায় বসেন। বেড়ি বাঁধ ও শ্মশানের রাস্তার উপর দিয়ে আর কখনও ইট ভাটার ট্রলি বা যানবাহন চলাচল করবে

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Popular Post

বাংলাদেশি it কোম্পানি

আদিতমারীতে ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন এর শালমারায় বায়ার কোম্পানির ভুট্টা বীজ ৯২১৭এর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

x

পাইকগাছার বোয়ালিয়া শ্মশানের পাকা রাস্তার উপরে মাটি ফেলে কাঁচা রাস্তা তৈরী করেছে ইট ভাটা; এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ

Update Time : ০৬:৪২:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ নভেম্বর ২০২৩

খুলনা প্রতিনিধি:পাইকগাছায় বোয়লিয়া শ্মশানে যাওয়ার পাকা রাস্তাটি রাতের আধারে মাটি দিয়ে উচু করে কাঁচা রাস্তায় পরিণত করার অভিযোগ উঠেছে ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, সড়কের পাশেই পুরাইকাটিতে অবস্থিত ফাইভ স্টার ব্রিকস্ ইটভাটার ট্রলিসহ যানবাহন চলাচলের স্বার্থে শ্মশানে যাওয়ার পাকা রাস্তাটিতে মাটি দিয়ে কাঁচা রাস্তা তৈরি করায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পাকা রাস্তার উপর মাটির কাঁচা রাস্তা তৈরি করায় এবড়ো খেবড়ো মাটি ও বৃষ্টিতে কাদা মাটিতে চলাচল করতে ব্যাপক অসুবিধায় পড়েছে শ্মশানে যাওয়া শবযাত্রী ও নদের পাড়ের জেলে পরিবারগেুলো। ফলে সড়কটির এমন বেহাল অবস্থা হয়েছে যে যান চলাচল তো দুরের কথা, পায়ে হেটে চলারও সম্পুর্ণ অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এতে ক্ষোভে ফুসে উঠছে ভুক্তভোগিরা। ভুক্তভোগীদের বক্তব্য ভাটা মালিকরা রাতের আধারে পাকা রাস্তায় মাটি দিয়ে করেছে।এবিষয়ে তাহারা জরুরী ভিত্তিতে ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ রাস্তাটি পাকা করার দাবি জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের কাছে।

সরজমিনে যেয়ে দেখা যায়, পাইকগাছার বোয়ালিয়া মহাশ্মশানটি কপোতাক্ষ নদের তীরে অবস্থিত। কপোতাক্ষ নদের উপর ব্রীজ ও সংযোগ সড়ক তৈরি হওয়ার পরে শ্মশানে যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়। শ্মশানে যাওয়ার কোন পথ না থাকায় বাধ্য হয়ে শবযাত্রীরা বোয়ালিয়া বীজ উৎপাদন খামারের ভিতর দিয়ে যাওযা আসা করতে থাকে। এমতাবস্থায় স্থানীয় সনাতন ধর্মালম্বীরা ফার্মের শরণাপন্ন হলে ফার্ম কর্তৃপক্ষ মানবিক কারণে ব্রীজের পাশ দিয়ে শ্মশানে যাওয়া জন্য রাস্তা তৈরি করে দেয়। পরে সরকারি অর্থে রাস্তাটি আর সিসি ঢালাই করা হয়। রাস্তাটি ফার্ম কর্তৃপক্ষ ও শ্মশান কমিটির নিয়ন্ত্রণে দেখভাল করা হয়। বোয়ালিয়া মহাশ্মশান কমিটির উপদেষ্টা ও উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সমিরণ কুমার সাধু বলেন, পাশের ইটভাটা মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান তার ভাটার ইটসহ বিভিন্ন সামগ্রী বহন করার জন্য ঢালাই রাস্তাটি নিচু হওয়ায় মাটি দিয়ে উচু করে পাকা ঢালাই করে দিবে বলেছিলো। কিন্তু সাত আট মাস পার হয়ে গেছে। কেন রাস্তাটি পাকা ঢালাই করছে না এ বিষয়ে তার সাথে কথা বলবো। রাস্তা পাকা করে না দিলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

ফার্মের দক্ষিণ পাশে পুরাইকাটি মৌজায় এফএফ ব্রিকস ও ফাইভ স্টার ব্রিকস্ অবস্থিত। গত বছর এমএসবি ব্রিকস্ এর মালিক মোঃ শাহিনুর রহমান দেনার দায়ে নিরুদ্দেশ হলে বিভিন্ন ঘটনার পর ফাইভ স্টার ব্রিকস্ নামে এ্যাড. মুজিবুর রহমান ও তার অংশীদাররা ইট ভাটাটি পরিচালনা করছেন। প্রায় ২০-২৫ বছর ২টি ইটভাটার যানবাহন পুরাইকাটীর ভিতর দিয়ে আসা যাওয়া করছে। তবে গত বছর থেকে ফাইভ স্টার ব্রিকস্ এর ট্রলিসহ বিভিন্ন যানবাহন কপোতাক্ষ নদের বেড়ী বাঁধ ও শ্মশানে যাওয়ার রাস্তাটি বিনা অনুমতিতে মাঝে মধ্যে ব্যবহার করছেন। এ বিষয়ে ফাইভ স্টার ব্রিকস্ এর মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান বলেন, পুরাইকাটি গ্রামের ভিতরের রাস্তার চাপ কমানোর জন্য আমরা ২টি ভাটা মিলে শ্মশানের সড়কটিতে প্রায় ২ লাখ ২০ হাজার টাকা মাটি ফেলে উঁচু করেছি। তবে বেড়ি বাঁধ ও শ্মশানের যাওয়ার রাস্তার উপর দিয়ে যানবাহন চলাচলে ফার্মের ম্যানেজার বাঁধা সৃষ্টি করছেন। আমাদের যানযাবহন যাতে চলতে না পারে তার জন্য তিনি গাছ পুতে দিয়েছেন। তবে তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বোয়ালিয়া বীজ উৎপাদন খামারের কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোন অনুমতি না নিয়ে পাকা রাস্তার উপরে মাটি ফেলেছেন। তিনি আরও বলেন, রাস্তার ক্ষতি হলে আমরা মাটি দিয়ে ঠিক করে দেবো। আমাদের ট্রলি চলতে না দিলে শ্মশানে যাওয়া রাস্তা উপর যে মাটি ফেলেছি প্রয়োজন হলে তা আমরা কেটে তুলে নিয়ে আসবো। এ ঘটনায় বীজ উৎপাদন খামারের সিনিয়র সহকারী পরিচালক নাহিদুল ইসলাম জানান, ইট ভাটার মালিক এ্যাড. মুজিবুর রহমান কোন অনুমতি ছাড়াই রাতের আঁধারে ফার্মের দেওয়া পাকা রাস্তার উপর মাটি দিয়ে ভরাট করেছেন।

এদিকে গত ১৩ অক্টোবর শুক্রবার রাতের বেলা তিনটি ইট ভর্তি ট্রলি বেড়ি বাঁধের উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় একটি ট্রলি উল্টে ফার্মের ভিতরে পড়ে। এ সময় স্থানীয়রা ট্রলি চলাচলে বাঁধা দিলে ট্রলি চালকরা তাদেরকে হুমকি ধামকি দিলে উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও গদাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ জিয়াদুল ইসলাম জিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি অবগত করেন। এর মধ্যে ফার্মের পরিচালক ঘটনাস্থলে আসেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আল-আমিন ঐ রাতে ঘটনাস্থলে পৌছিয়ে ট্রলি তিনটি আটক করে ফার্মের ভিতরে রাখেন। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য ভাটা মালিক, ফার্ম কর্তৃপক্ষ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও কে নিয়ে ১৫ অক্টোবর তার কার্যালয়ে আলোচনায় বসেন। বেড়ি বাঁধ ও শ্মশানের রাস্তার উপর দিয়ে আর কখনও ইট ভাটার ট্রলি বা যানবাহন চলাচল করবে