Add more content here...
Dhaka ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
লালপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কলা গাছ কেটেছে দুর্বৃত্তরা বগুড়া সদর উপজেলার এরুলিয়া কাফেলা কোল্ড স্টোরেজ এ মোবাইল কোর্ট অভিযানে অবৈধভাবে ২,১৮,১৭৯ পিছ ডিম উদ্ধার লালপুর উপজেলা নির্বাচনে নব নির্বাচিত হলেন আলহার্জ মোঃ শামিম আহমেদ সাগর বগুড়ার কাহালুতে সুরুজ চেয়ারম্যান ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আছমা বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত বোচাগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে মোঃ আফসার আলী নির্বাচিত রাজবাড়ীতে ভোট দিতে এসে ইউসুফ মন্ডল নামের এক ব্যাক্তির মৃত্যু টেকনাফ উপজেলা মানব পাচার সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে আসন্ন টেকনাফ রামু ও উখিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের চলছে নির্বাচনী প্রচারণা মানুষের আকর্ষণ তৈরি হয় চারভাবে।শরীর, চেহারা যোগ্যতা আর মন দিয়ে একদিন যোগ্য হবো
নোটিশঃ
প্রিয়" পাঠকগণ", "শুভাকাঙ্ক্ষী" ও প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে জানানো যাচ্ছে:- কিছুদিন যাবত কিছু প্রতারক চক্র দৈনিক ক্রাইম তালাশ এর নাম ব্যবহার করে প্রতিনিধি নিয়োগ ও বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। তার সাথে একটি সক্রিয় চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রুপ বিভিন্ন ভাবে "দৈনিক ক্রাইম তালাশ"কে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মনে রাখবেন "দৈনিক ক্রাইম তালাশ" এর অফিসিয়াল পেজ বা নিম্নের দুটি নাম্বার ব্যাতিত কোন রকম লেনদেনে জড়াবেন না। মোবাইল: 01867329107 হটলাইন: 01935355252

পাইকগাছায় নাগরিক সংলাপে জনপ্রতিনিধি ও পরিবেশ আন্দোলন

খুলনা প্রতিনিধি: ঐতিহ্যবাহি কপোতাক্ষ-শিবসাসহ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলের নদ-নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ (জোয়ার-ভাটা) ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সমন্বিত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। তারা বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন ও মনুষ্য সৃষ্ট নানা কারণে এক সময়ের খরস্রোতা কপোতাক্ষ-শিবসার মতো অনেক নদীই এখন অস্তিত্ব হারাতে বসেছে। যে কারণে নদী পাড়ের মানুষ জীবিকা হারাচ্ছে। ফলে তারা এলাকা ছাড়তে বাধ্য হচ্ছে এবং শহরে গিয়ে নতুন সংকট তৈরি করছে।
বুধবার খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ‘ওয়াটারকিপার্স-বাংলাদেশ’, অনির্বাণ লাইব্রেরি এবং নাগরিক সংগঠন ‘সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলন’ আয়োজিত নাগরিক সংলাপে এসব কথা বলেন তারা। ‘কপোতাক্ষ-শিবসাসহ নদ-নদী ভরাট-দখল-দুষণ : জরুরি করণীয়’ শীর্ষক সংলাপে সভাপতিত্ব করেন সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্র। প্রধান আলোচক ছিলেন ওয়াটারকিপার্স-বাংলাদেশের সমন্বয়ক শরীফ জামিল। ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এণ্ড একোয়াকালচার বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মীর মোহাম্মদ আলী।
সংলাপে বক্তৃতা করেন পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আল-আমিন, পাইকগাছা পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, আশাশুনি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, পাইকগাছা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিহাবুদ্দীন ফিরোজ বুলু ও লিপিকা ঢালী, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়ার্দ্দার, দেলুটি ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মণ্ডল, পাইকগাছা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শেখ মাহবুবুর রহমান রনজু ও কবিতা রানী দাশ, ইউপি সদস্য বিষ্ণু পদ রায় ও স্মিতা মণ্ডল, তালা উপজেলা পানি কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন জোয়াদ্দার, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাকিলা পারভীন, স্বদেশ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মাধব দত্ত, লিডার্সের নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মণ্ডল, পাইকগাছা নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট প্রশান্ত মণ্ডল, অধ্যক্ষ হরেকৃষ্ণ দাশ, খূলনার সাংবাদিক নেতা রকিব উদ্দিন পান্নু, শামীমুজ্জামান ও শেখ আল-এহসান, সাতক্ষীরার নাগরিক নেতা নূর আলী খান, প্রেস ক্লাব পাইকগাছা এর সেক্রেটারি সাংবাদিক এম জালাল উদ্দীন, অনির্বাণ লাইব্রেরির সভাপতি রহিমা আক্তার শম্পা ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাত দেবনাথ, কয়রার নাগরিক নেতা ইমতিয়াজ উদ্দিন, যুবনেতা প্রদীপ দত্ত, সচেতন সংস্থার সভাপতি বিদ্যুৎ বিশ্বাস, প্রভাষক এস আর আওয়াল, এস এম মুস্তাফিজুর রহমান পারভেজ, দাউদ শরীফ, রিয়াদ হোসেন প্রমূখ।
আলোচনায় অংশ নিয়ে ইউএনও মুহাম্মদ আল-আমিন বলেন, নদী মাতৃক বাংলাদেশ এখন নদী দখল ও দুষণের বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে। সমাজের প্রভাবশালীরা এই দখল ও দুষণের সঙ্গে জড়িত। পাইকগাছা উপজেলার ১৫৬টি জলমহলের মধ্যে ১৪২টি জলমহল প্রভাবশালীরা অবৈধভাবে দখল করে আছে। এ সকল জলমহল দখল মুক্ত করতে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। নদ-নদী ও জলমহল রক্ষায় দলমত নির্বিশেষে সম্মিলিত ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন, পাইকগাছা পৌরসভার প্রাণকেন্দ্র থেকে শিবসা নদীতে নৌ-পথেই সহজেই যাতায়াত করতো খুলনা-সাতক্ষীরার জনগণ। অথচ প্রবল খরস্রোতা সেই নদী এখন পলি জমে সম্পূর্ণ ভরাট হয়ে নালায় পরিণত হয়েছে। জেগে উঠছে বিশাল চর। সেই চর ও নদীর জায়গা দখলের প্রতিযোগিতা চলছে। ফলে বর্ষা মৌসুম এলেই জোয়ারের পানিতে পাইকগাছা পৌরসভা প্লাবিত হচ্ছে। পৌরসভাকে বাঁচাতে সরকারের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Popular Post

বাংলাদেশি it কোম্পানি

লালপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কলা গাছ কেটেছে দুর্বৃত্তরা

x

পাইকগাছায় নাগরিক সংলাপে জনপ্রতিনিধি ও পরিবেশ আন্দোলন

Update Time : ০৯:০৭:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

খুলনা প্রতিনিধি: ঐতিহ্যবাহি কপোতাক্ষ-শিবসাসহ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলের নদ-নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ (জোয়ার-ভাটা) ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সমন্বিত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। তারা বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন ও মনুষ্য সৃষ্ট নানা কারণে এক সময়ের খরস্রোতা কপোতাক্ষ-শিবসার মতো অনেক নদীই এখন অস্তিত্ব হারাতে বসেছে। যে কারণে নদী পাড়ের মানুষ জীবিকা হারাচ্ছে। ফলে তারা এলাকা ছাড়তে বাধ্য হচ্ছে এবং শহরে গিয়ে নতুন সংকট তৈরি করছে।
বুধবার খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ‘ওয়াটারকিপার্স-বাংলাদেশ’, অনির্বাণ লাইব্রেরি এবং নাগরিক সংগঠন ‘সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলন’ আয়োজিত নাগরিক সংলাপে এসব কথা বলেন তারা। ‘কপোতাক্ষ-শিবসাসহ নদ-নদী ভরাট-দখল-দুষণ : জরুরি করণীয়’ শীর্ষক সংলাপে সভাপতিত্ব করেন সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্র। প্রধান আলোচক ছিলেন ওয়াটারকিপার্স-বাংলাদেশের সমন্বয়ক শরীফ জামিল। ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এণ্ড একোয়াকালচার বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মীর মোহাম্মদ আলী।
সংলাপে বক্তৃতা করেন পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আল-আমিন, পাইকগাছা পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, আশাশুনি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, পাইকগাছা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিহাবুদ্দীন ফিরোজ বুলু ও লিপিকা ঢালী, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়ার্দ্দার, দেলুটি ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মণ্ডল, পাইকগাছা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শেখ মাহবুবুর রহমান রনজু ও কবিতা রানী দাশ, ইউপি সদস্য বিষ্ণু পদ রায় ও স্মিতা মণ্ডল, তালা উপজেলা পানি কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন জোয়াদ্দার, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাকিলা পারভীন, স্বদেশ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মাধব দত্ত, লিডার্সের নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মণ্ডল, পাইকগাছা নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট প্রশান্ত মণ্ডল, অধ্যক্ষ হরেকৃষ্ণ দাশ, খূলনার সাংবাদিক নেতা রকিব উদ্দিন পান্নু, শামীমুজ্জামান ও শেখ আল-এহসান, সাতক্ষীরার নাগরিক নেতা নূর আলী খান, প্রেস ক্লাব পাইকগাছা এর সেক্রেটারি সাংবাদিক এম জালাল উদ্দীন, অনির্বাণ লাইব্রেরির সভাপতি রহিমা আক্তার শম্পা ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাত দেবনাথ, কয়রার নাগরিক নেতা ইমতিয়াজ উদ্দিন, যুবনেতা প্রদীপ দত্ত, সচেতন সংস্থার সভাপতি বিদ্যুৎ বিশ্বাস, প্রভাষক এস আর আওয়াল, এস এম মুস্তাফিজুর রহমান পারভেজ, দাউদ শরীফ, রিয়াদ হোসেন প্রমূখ।
আলোচনায় অংশ নিয়ে ইউএনও মুহাম্মদ আল-আমিন বলেন, নদী মাতৃক বাংলাদেশ এখন নদী দখল ও দুষণের বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে। সমাজের প্রভাবশালীরা এই দখল ও দুষণের সঙ্গে জড়িত। পাইকগাছা উপজেলার ১৫৬টি জলমহলের মধ্যে ১৪২টি জলমহল প্রভাবশালীরা অবৈধভাবে দখল করে আছে। এ সকল জলমহল দখল মুক্ত করতে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। নদ-নদী ও জলমহল রক্ষায় দলমত নির্বিশেষে সম্মিলিত ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন, পাইকগাছা পৌরসভার প্রাণকেন্দ্র থেকে শিবসা নদীতে নৌ-পথেই সহজেই যাতায়াত করতো খুলনা-সাতক্ষীরার জনগণ। অথচ প্রবল খরস্রোতা সেই নদী এখন পলি জমে সম্পূর্ণ ভরাট হয়ে নালায় পরিণত হয়েছে। জেগে উঠছে বিশাল চর। সেই চর ও নদীর জায়গা দখলের প্রতিযোগিতা চলছে। ফলে বর্ষা মৌসুম এলেই জোয়ারের পানিতে পাইকগাছা পৌরসভা প্লাবিত হচ্ছে। পৌরসভাকে বাঁচাতে সরকারের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।