Add more content here...
Dhaka ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
মহিপুরে সাধুর ব্রিজ ভেঙে পড়ল খালে, ভোগান্তিতে পর্যটক সহ ৫ গ্রামের মানুষ গোপালগঞ্জে পতিত জমিতে মিলছে মণে মণে মাছ: প্রধানমন্ত্রী অর্থ সাশ্রয় বিবেচনায়প্রকল্প নিতে হবে প্রধানমন্ত্রী লালপুরে এ্যাডভোকেট আবুল কালাম এমপিকে গণ সংবর্ধনা সিদ্ধিরগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে জখম দরিদ্রদের জন্য চিকিৎসাসেবা আরোসহজ করার উপর জোর দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মোকে নিয়ে ভারতীয় দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা-বিশ্লেষশকগণ মেহেরপুরে বিদেশী পিস্তল সহ ৫ যুবক আটক দৈনিক বর্তমান সংবাদ পত্রিকার ২ য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বাঘায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
নোটিশঃ
প্রিয়" পাঠকগণ", "শুভাকাঙ্ক্ষী" ও প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে জানানো যাচ্ছে:- কিছুদিন যাবত কিছু প্রতারক চক্র দৈনিক ক্রাইম তালাশ এর নাম ব্যবহার করে প্রতিনিধি নিয়োগ ও বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। তার সাথে একটি সক্রিয় চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রুপ বিভিন্ন ভাবে "দৈনিক ক্রাইম তালাশ"কে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মনে রাখবেন "দৈনিক ক্রাইম তালাশ" এর অফিসিয়াল পেজ বা নিম্নের দুটি নাম্বার ব্যাতিত কোন রকম লেনদেনে জড়াবেন না। মোবাইল: 01867329107 হটলাইন: 01935355252

তথ্য গোপন অটল পিআইও নাসরিনসহযোগিতায় ইউএনও’র অসহায়ত্ব প্রকাশ

মোঃ রায়হান হোসেন,চীপ রিপোর্টার:
পরপর তিন বারের ক্ষমতাসিন আওয়ামী লীগ সরকার দেশর ব্যপক উন্নয়ন করে যাচ্ছে। যার ফলে গ্রাম শহরে পরিনত হতে চলেছে। শিক্ষা, চিকিৎসা ও যোগাযোগসহ বিভিন্ন সেক্টরে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠি পেয়েছে উন্নয়নের ছোয়া। সরকারের এসব তথ্য দেশের অন্যান্য জেলা-উপজেলায় ব্যাপক ভাবে গণমাধ্যমে প্রচার হলেও নড়াইলে কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার দায়িত্বহীনতার কারনে তা হচ্ছে না। বিশেষ করে নড়াইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তর থেকে সরকারের উন্নয়ন কাজের তথ্য গোপন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন পিআইও মোসা: নাসরিন সুলতানা নিজেই। এ বিষয়ে নড়াইল সরদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে গণমাধ্যম কর্মীরা সহযোগিতা চাইলে তিনি অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন।
উল্লেখ্য: গত ৩০ জুলাই নড়াইল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিনিধি কাজী আশরাফ নড়াইল সদর উপজেলার ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে টিআর, কাবিখা প্রকল্পের তালিকা চেয়ে তথ্য অধিকার আইনে লিখিত আবেদন করেন। আবদনের ২০ কর্মদিবসের মধ্যে আবেদনকারিকে তথ্য প্রদান করতে হবে। কিন্তু তিন মাস পার হয়ে গেলেও তথ্য প্রদান করনে নি নড়াইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন। এ ছাড়া লোকমুখে শোনা গেছে, পিআইও নাসরিন সুলতানার পরিবার বিএনপি-জামায়াতের অনুসারি ছিলেন। তারা বিভিন্ন সময় আওয়ামী লীগ সরকার পতনে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছেন।
কথা হয় নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তারের সাথে। তিনি বলেন, তথ্য প্রদানে পিআইও নাসরিন সুলতানার অসহযোগিতার বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিকরা আমাকে জানিয়েছে। আমি নাসরিন সুলতানাকে তথ্য প্রদান করতে বলেছি। তার পরও তিনি তথ্য কেন দিচ্ছেন না সে বিষয়টি আমি দেখছি।
এ বিষয়ে সাংবাদিক কাজী আশরাফ বলেন, জনগণের তথ্য অধিকার প্রাপ্তির লক্ষ্যে বর্তমান সরকার ২০০৯ সালে তথ্য অধিকার আইন পাস করেছে। আইনটি জনবান্ধব। জনগণ আইনটি ব্যবহার করে তার প্রয়োজনীয় তথ্য বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে পেতে পারেন। কিন্তু জনস্বার্থে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রকল্পের তালিকা না দিয়ে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়রম্যানের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন পিআইও নাসরিন সুলতানা।
কথা হয় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানার সাথে। তিনি বলেন, নড়াইল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিনিধি কাজী আশরাফ টিআর কাবিখার প্রকল্পের তালিকা চেয়ে আমার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন। আমি তাকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে সমন্ময় করতে বলেছি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Popular Post

বাংলাদেশি it কোম্পানি

মহিপুরে সাধুর ব্রিজ ভেঙে পড়ল খালে, ভোগান্তিতে পর্যটক সহ ৫ গ্রামের মানুষ

তথ্য গোপন অটল পিআইও নাসরিনসহযোগিতায় ইউএনও’র অসহায়ত্ব প্রকাশ

Update Time : ০৬:৫২:০২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৪ নভেম্বর ২০২৩

মোঃ রায়হান হোসেন,চীপ রিপোর্টার:
পরপর তিন বারের ক্ষমতাসিন আওয়ামী লীগ সরকার দেশর ব্যপক উন্নয়ন করে যাচ্ছে। যার ফলে গ্রাম শহরে পরিনত হতে চলেছে। শিক্ষা, চিকিৎসা ও যোগাযোগসহ বিভিন্ন সেক্টরে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠি পেয়েছে উন্নয়নের ছোয়া। সরকারের এসব তথ্য দেশের অন্যান্য জেলা-উপজেলায় ব্যাপক ভাবে গণমাধ্যমে প্রচার হলেও নড়াইলে কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার দায়িত্বহীনতার কারনে তা হচ্ছে না। বিশেষ করে নড়াইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তর থেকে সরকারের উন্নয়ন কাজের তথ্য গোপন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন পিআইও মোসা: নাসরিন সুলতানা নিজেই। এ বিষয়ে নড়াইল সরদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে গণমাধ্যম কর্মীরা সহযোগিতা চাইলে তিনি অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন।
উল্লেখ্য: গত ৩০ জুলাই নড়াইল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিনিধি কাজী আশরাফ নড়াইল সদর উপজেলার ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে টিআর, কাবিখা প্রকল্পের তালিকা চেয়ে তথ্য অধিকার আইনে লিখিত আবেদন করেন। আবদনের ২০ কর্মদিবসের মধ্যে আবেদনকারিকে তথ্য প্রদান করতে হবে। কিন্তু তিন মাস পার হয়ে গেলেও তথ্য প্রদান করনে নি নড়াইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন। এ ছাড়া লোকমুখে শোনা গেছে, পিআইও নাসরিন সুলতানার পরিবার বিএনপি-জামায়াতের অনুসারি ছিলেন। তারা বিভিন্ন সময় আওয়ামী লীগ সরকার পতনে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছেন।
কথা হয় নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তারের সাথে। তিনি বলেন, তথ্য প্রদানে পিআইও নাসরিন সুলতানার অসহযোগিতার বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিকরা আমাকে জানিয়েছে। আমি নাসরিন সুলতানাকে তথ্য প্রদান করতে বলেছি। তার পরও তিনি তথ্য কেন দিচ্ছেন না সে বিষয়টি আমি দেখছি।
এ বিষয়ে সাংবাদিক কাজী আশরাফ বলেন, জনগণের তথ্য অধিকার প্রাপ্তির লক্ষ্যে বর্তমান সরকার ২০০৯ সালে তথ্য অধিকার আইন পাস করেছে। আইনটি জনবান্ধব। জনগণ আইনটি ব্যবহার করে তার প্রয়োজনীয় তথ্য বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে পেতে পারেন। কিন্তু জনস্বার্থে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রকল্পের তালিকা না দিয়ে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়রম্যানের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন পিআইও নাসরিন সুলতানা।
কথা হয় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানার সাথে। তিনি বলেন, নড়াইল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিনিধি কাজী আশরাফ টিআর কাবিখার প্রকল্পের তালিকা চেয়ে আমার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন। আমি তাকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে সমন্ময় করতে বলেছি।