Add more content here...
Dhaka ১১:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
সিদ্ধিরগঞ্জ চৌধুরী বাড়ি আর,কে গ্রুপে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের আন্দোলন টাঙ্গাইল গোপালপুরে ২০১ গম্বুজ মসজিদ চত্বরে পুলিশ বক্স স্থাপন শহিদ বুদ্ধিজীবীর স্বীকৃতি পেলেন স্কুল শিক্ষক মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস  ২০২৪ উপলক্ষে ভাষা শহিদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করলেন নাটোর ১ আসনের অ্যাড: আবুল কালাম আজাদ এমপি মহোদয় টাঙ্গাইল মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪ উপলক্ষে ভাষা শহিদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করলেন নাটোর ১ আসনের অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ এমপি মহোদয় রৌমারীতে মহান শহিদ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত মাধবপুরে মুখ ঝলসে যাওয়া শিশুর আকুতি সিদ্ধিরগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ছিদ্দীকিয়া ইসলামিয়া মাদরাসায় প্রতিযোগিতা ও অভিভাবক সম্মেলন বগুড়ার কাহালুতে দীর্ঘ ২১ বছর পর মা ফিরে পেল তার শারীরিক প্রতিবন্ধী রুস্তম কে
নোটিশঃ
প্রিয়" পাঠকগণ", "শুভাকাঙ্ক্ষী" ও প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে জানানো যাচ্ছে:- কিছুদিন যাবত কিছু প্রতারক চক্র দৈনিক ক্রাইম তালাশ এর নাম ব্যবহার করে প্রতিনিধি নিয়োগ ও বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। তার সাথে একটি সক্রিয় চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রুপ বিভিন্ন ভাবে "দৈনিক ক্রাইম তালাশ"কে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মনে রাখবেন "দৈনিক ক্রাইম তালাশ" এর অফিসিয়াল পেজ বা নিম্নের দুটি নাম্বার ব্যাতিত কোন রকম লেনদেনে জড়াবেন না। মোবাইল: 01867329107 হটলাইন: 01935355252

চন্দনাইশে সাব রেজিষ্ট্রার,শর্মি পালিতের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:৪৮:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৪
  • ২৮ Time View

মোঃআমিন উল্লাহ টিপু,চন্দনাইশ প্রতিনিধি:
চন্দনাইশ উপজেলার গাছবাড়ীয়া সাব রেজিষ্ট্রী অফিসের সাব রেজিষ্ট্রার, শর্মি পালিতের দুর্নীতি প্রতিবাদে ২৭ জানুয়ারী সকাল ১১টায় গাছবাড়ীয়াস্থ ভুক্তভোগীর পরিবারের বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে। লিখিত বক্তব্য ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ হারুন। এসময় লিখিত বক্তব্য তিনি বলেন, বিগত ১৯৮১ সালের ৩০ নভেম্বর ভুক্তভোগীর দাদী জরিমন খাতুনের মালিকানা পশ্চিম
ধোপাছড়ি মৌজার ২.৯২ একর সম্পত্তি তার চাচা আবদুল গফুর সওদাগরের রেজিষ্ট্রকৃত ৩৫৩৬ নং দানপত্র মূলে হস্তান্তর করেন। পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর চাচার আবদুল গফুর সওদাগর পুনরায় বিগত ১৯৮৩ সালের ৩০ নভেম্বও রেজিষ্ট্রকৃত ৪৪০৪ নং দলিল মূলে তার দাদী জরিমন খাতুন কে উক্ত ২.৯২ একর সম্পত্তি ফেরত প্রদান করিয়া স্বত্বচ্যুত হন। কিন্তু তার চাচা আবদুল গফুর সওদাগর উক্ত সম্পত্তি পুনরায় ফেরত প্রদানের তথ্য গোপন করে পূর্বের দানপত্র দলিল মূলে তার নামে নামজারী সৃজিত বিএস ৫৮০ নং খতিয়ান সৃজন করে। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী জানিতে পারিয়া চন্দনাইশ উপজেলা ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দিলে উক্ত বিএস নামজারী সৃজিত খতিয়ান ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর উক্ত খতিয়ান বাতিল করেন। পরে তার চাচা আমার চাচা আবদুল গফুর সওদাগর উক্ত খতিয়ান বাতিলের তথ্য গোপন করিয়া গাছবাড়ীয়া সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের দুর্নীতিবাজ সাব রেজিস্ট্রার শর্মি পালিতকে ১ লক্ষ ৬০ হাজার ও দোহাজারী ভূমি অফিসের তহসিলদার মোঃ নাসির কে ৩০ হাজার টাকা ঘুষ দিয়ে বাতিল খতিয়ানের খাজনা আদায় দেখিয়া সাব রেজিষ্ট্রার শর্মি পালিত এর সহযোগীতায় আবদুল গফুরের ৩ পুত্রের নামে হেবার ঘোষণাপত্র দলিল মূলে ফেরবী দলিল সৃজন করে। এ ঘটনা ভুক্তভোগী জানতে পেরে সাব রেজিষ্ট্রার শর্মি পালিত কাছ থেকে জানতে চাইলে শর্মিত পাল ক্ষুব্দ হয়ে তার মালিকানাধীন ভবনে অফিসটি চুক্তি মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ভুল তথ্য দিয়ে জেলা সাব রেজিষ্ট্রার বরাবরে চিঠি ইস্যু করে ভবনের ৭ লক্ষ টাকা বকেয়া রাখিয়া তাদের অফিসটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়। যার ফলে তিনি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী নুরুল আবছার বলেন, শর্মি পালিত এর দূনীর্তির সঠিক তদন্তের জন্য দুদুকসহ সংশ্লিষ্ট প্রশসানের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। এসময় ভুক্তভোগী সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,মোঃ সাইফুদ্দীন ফারুকী, রবিউল ইসলাম,রফিকুল ইসলাম ও মোঃ ফারুক।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Popular Post

বাংলাদেশি it কোম্পানি

সিদ্ধিরগঞ্জ চৌধুরী বাড়ি আর,কে গ্রুপে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের আন্দোলন

চন্দনাইশে সাব রেজিষ্ট্রার,শর্মি পালিতের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

Update Time : ০৩:৪৮:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৪

মোঃআমিন উল্লাহ টিপু,চন্দনাইশ প্রতিনিধি:
চন্দনাইশ উপজেলার গাছবাড়ীয়া সাব রেজিষ্ট্রী অফিসের সাব রেজিষ্ট্রার, শর্মি পালিতের দুর্নীতি প্রতিবাদে ২৭ জানুয়ারী সকাল ১১টায় গাছবাড়ীয়াস্থ ভুক্তভোগীর পরিবারের বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে। লিখিত বক্তব্য ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ হারুন। এসময় লিখিত বক্তব্য তিনি বলেন, বিগত ১৯৮১ সালের ৩০ নভেম্বর ভুক্তভোগীর দাদী জরিমন খাতুনের মালিকানা পশ্চিম
ধোপাছড়ি মৌজার ২.৯২ একর সম্পত্তি তার চাচা আবদুল গফুর সওদাগরের রেজিষ্ট্রকৃত ৩৫৩৬ নং দানপত্র মূলে হস্তান্তর করেন। পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর চাচার আবদুল গফুর সওদাগর পুনরায় বিগত ১৯৮৩ সালের ৩০ নভেম্বও রেজিষ্ট্রকৃত ৪৪০৪ নং দলিল মূলে তার দাদী জরিমন খাতুন কে উক্ত ২.৯২ একর সম্পত্তি ফেরত প্রদান করিয়া স্বত্বচ্যুত হন। কিন্তু তার চাচা আবদুল গফুর সওদাগর উক্ত সম্পত্তি পুনরায় ফেরত প্রদানের তথ্য গোপন করে পূর্বের দানপত্র দলিল মূলে তার নামে নামজারী সৃজিত বিএস ৫৮০ নং খতিয়ান সৃজন করে। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী জানিতে পারিয়া চন্দনাইশ উপজেলা ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দিলে উক্ত বিএস নামজারী সৃজিত খতিয়ান ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর উক্ত খতিয়ান বাতিল করেন। পরে তার চাচা আমার চাচা আবদুল গফুর সওদাগর উক্ত খতিয়ান বাতিলের তথ্য গোপন করিয়া গাছবাড়ীয়া সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের দুর্নীতিবাজ সাব রেজিস্ট্রার শর্মি পালিতকে ১ লক্ষ ৬০ হাজার ও দোহাজারী ভূমি অফিসের তহসিলদার মোঃ নাসির কে ৩০ হাজার টাকা ঘুষ দিয়ে বাতিল খতিয়ানের খাজনা আদায় দেখিয়া সাব রেজিষ্ট্রার শর্মি পালিত এর সহযোগীতায় আবদুল গফুরের ৩ পুত্রের নামে হেবার ঘোষণাপত্র দলিল মূলে ফেরবী দলিল সৃজন করে। এ ঘটনা ভুক্তভোগী জানতে পেরে সাব রেজিষ্ট্রার শর্মি পালিত কাছ থেকে জানতে চাইলে শর্মিত পাল ক্ষুব্দ হয়ে তার মালিকানাধীন ভবনে অফিসটি চুক্তি মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ভুল তথ্য দিয়ে জেলা সাব রেজিষ্ট্রার বরাবরে চিঠি ইস্যু করে ভবনের ৭ লক্ষ টাকা বকেয়া রাখিয়া তাদের অফিসটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়। যার ফলে তিনি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী নুরুল আবছার বলেন, শর্মি পালিত এর দূনীর্তির সঠিক তদন্তের জন্য দুদুকসহ সংশ্লিষ্ট প্রশসানের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। এসময় ভুক্তভোগী সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,মোঃ সাইফুদ্দীন ফারুকী, রবিউল ইসলাম,রফিকুল ইসলাম ও মোঃ ফারুক।